home top banner

স্বাস্থ্য টিপ

দুর্বলতা কাটিয়ে উঠুন সহজ কিছু উপায়ে
১১ জানুয়ারী, ১৭
Tagged In:  weakness  physically weak  
  Viewed#:   4379

get-rid-of-weakness

দুর্বল ও ক্লান্ত অনুভব করা খুবই সাধারণ একটি সমস্যা। তখন চোখগুলো এমন ভারী  হয়ে আসে যে সাধারণ কাজটাও করা যায়না। যদি প্রতিদিনই এই সমস্যা হয় তাহলে কী হবে? আপনার উৎপাদনশীলতা কমে যাবে এবং আপনার পারফরমেন্সের উপর প্রভাব পড়বে। এছাড়াও এটি কিছু অন্তর্নিহিত রোগকেও নির্দেশ করে। কিন্তু অনেক রোগীদের ক্ষেত্রেই রক্ত পরীক্ষায় তেমন কিছু ধরা পড়েনা বলে ডাক্তার বলেন যে, দুর্বলতার কারণে এমন হচ্ছে।

তাহলে তখন কি করা উচিৎ গ্লুকোজ বা এনার্জি পিল বা এনার্জি ড্রিংক পান করা উচিৎ? গ্লুকোজ আসলে সব সময় ভালো সমাধান নয়। দুর্বলতা কাটিয়ে এনার্জি লাভ করার অনেক উপায় আছে যা খুব কঠিন কিছু নয়। চলুন তাহলে জেনে নিই দুর্বলতার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার সহজ কিছু উপায়।

১। আপনি কি খাচ্ছেন তা খেয়াল করুন
সপ্তাহে এক বারের বেশি পিজা বা বার্গার অর্ডার দেয়ার পূর্বে দ্বিতীয়বার ভাবুন। এর চেয়ে মায়ের হাতের চাপাতি/রুটি এর সাথে সবজি ও সালাদ দিয়ে খেয়ে নিন, যা পনির ও মেয়নেজ এ পরিপূর্ণ পিজা ও বার্গারের চেয়ে অনেক বেশি এনার্জি দিতে পারবে। সবসময় স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন এবং ফিট থাকুন।

২। শরীর নাড়াচাড়া করুন
যেকোন ধরণের শারীরিক কাজের সাথে যুক্ত হোন। ফিট থাকার জন্য জিমে যেতে হবে এমন কোন কথা নেই। জিমে যাওয়া ছাড়াও আরো অনেক ব্যায়াম আছে যেমন- সাঁতার, হাঁটা, ব্যাডমিন্টন খেলা, নাচা, ইয়োগা ইত্যাদি যা আপনাকে ফিট থাকতে সাহায্য করবে। আপনার পছন্দের কাজটি বেছে নিন এবং প্রতিদিন ৩০ মিনিট সেই কাজে মনোযোগ দিন।

৩। মস্তিষ্ককে শিথিল হতে দিন
যদি আপনার কোন স্বাস্থ্যগত সমস্যা না থাকে তাহলে আপনার দুর্বলতার কারণ আপনার মন। আপনার মন ও মস্তিষ্কের শিথিল হওয়া প্রয়োজন। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই আপনার কাজ শেষ করার চেষ্টা করুন। বন্ধুদের সাথে খেলাধুলায় অংশ নিন, সহকর্মীদের সাথে ভালো সম্পর্ক তৈরি করুন, পরিবারের সাথে সময় ব্যয় করার চেষ্টা করুন এবং সবসময় হাসিখুশি থাকার চেষ্টা করুন। এই ছোট ছোট কাজগুলোই আপনাকে সতেজ থাকতে এবং মানসিক ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করবে।

৪। শখের কাজ করুন
আপনি সত্যিই পছন্দ করেন এমন কোন কাজ করুন। এটা হতে পারে গিটার বাজানো, পিয়ানো শেখা, বই পড়া, ছবি আঁকা, গান শুনা ইত্যাদি। আপনি করতে ভালবাসেন এমন কোন কাজ করলেই আপনি এনার্জি পাবেন।

৫। ফল খান
বেশীরভাগ এনার্জি ড্রিঙ্কই চিনিতে পরিপূর্ণ থাকে যা শরীরের জন্য ভালো নয়। নিয়মিত সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ করলে কিডনি ও লিভারের উপর অধিক চাপ পড়ে। তাই ফল খাওয়াই হচ্ছে সবচেয়ে নিরাপদ, এর পাশাপাশি প্রচুর ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার, পানি, সবুজ শাকসবজি ও সালাদ খাওয়া  উচিৎ।


তথ্যসূত্র :practo

Please Login to comment and favorite this Health Tip
Next Health Tips: প্রতিদিন একটু বাদাম
Previous Health Tips: দীর্ঘক্ষণ প্রস্রাব আটকে রাখলে যেসব সমস্যা হতে পারে

আরও স্বাস্থ্য টিপ

হাঁটাহাঁটির পর পায়ের ব্যথা দূর করবেন যেভাবে

পহেলা বৈশাখে উৎসবের আমেজে অনেকে কাল সারাদিনই ছিলেন বাহিরে। এতে গরমে কাবু হয়ে গেছেন অনেকেই, কারও কারও এটাসেটা খেয়ে দেখা দিয়েছে পেটের সমস্যা। তবে বেশীরভাগ মানুষেরই দেখা দিচ্ছে পায়ের ব্যথা। বিশেষ করে যারা সাধারণত হাঁটতে অভ্যস্ত নন, তাদের পা ফেলতেই খুব কষ্ট হয় এত লম্বা সময় হাঁটার পর। আর হিল পরে... আরও দেখুন

কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে যে ৪ টি সুপারফুড

এলডিএল কোলেস্টেরলের মাত্রা মাত্রা বৃদ্ধি পেলে তাকে চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায়  হাইপারকোলেস্টেরোলেমিয়া বলে। সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন এর মতে, আমেরিকার পূর্ণবয়স্ক মানুষদের মধ্যে এক-তৃতীয়াংশের ও অধিক মানুষের উচ্চমাত্রার এলডিএল বা খারাপ কোলেস্টেরল থাকে। এ কারণেই হৃদরোগ ও হার্ট... আরও দেখুন

বয়স রুখে দেবে যে ৭টি খাবার

বয়স ধরে রাখতে বেশির ভাগ মানুষই চান। কিন্তু বয়স একটি প্রাকৃতিক বিষয়, সময়ের সাথে সাথে বয়স বৃদ্ধি পাবে।  সত্যিকার ভাবে শরীর ও ত্বকের বয়স কমিয়ে দেয়ার কোন ম্যাজিক নেই। ত্বকের বয়স ধরে রাখার জন্য নানান ধরনের ক্রিম, লোশন ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু এতে ত্বক কিছুটা সুস্থা থাকলেও বয়স কমানো সম্ভব... আরও দেখুন

গরমে আপনার হৃদপিন্ডকে সুস্থ রাখার টিপস

গরমের সময় তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে সাথে আমাদের শরীরের জলীয় অংশের পরিমাণ কমতে থাকে বলে অনেক বেশি তরল গ্রহণ করার প্রয়োজন হয়। শরীরের তাপমাত্রা বজায় রাখা এবং শরীরকে ঠান্ডা রাখার জন্য হৃদপিণ্ড অনেক দ্রুত রক্ত পাম্প করতে থাকে। বেশিরভাগ মানুষই এই পরিবর্তনকে মানিয়ে নেয় কোন সমস্যা ছাড়াই। কিন্তু... আরও দেখুন

টাইফয়েডের কারণ, লক্ষণ ও চিকিৎসা

টাইফয়েড এমন একটি তীব্র অসুস্থতা যা হয়ে থাকে Salmonella typhi নামক ব্যাকটেরিয়ার দ্বারা। Salmonella paratyphi নামক ব্যাকটেরিয়ার দ্বারাও হতে পারে টাইফয়েড যা কিছুটা কম তীব্র হয়। এই ব্যাকটেরিয়া পানি বা খাদ্যের মাধ্যমে ছড়ায়। সারা পৃথিবী জুড়ে প্রতি বছর ২১ মিলিয়ন মানুষ টাইফয়েডে আক্রান্ত হয় এবং এর... আরও দেখুন

কীভাবে দাঁত মাজবেন?

আমাদের দিন শুরু বা শেষ হয় দাঁত ব্রাশ করা দিয়েই। ঘুম থেকে উঠেই দাঁত ব্রাশ করা মাস্ট। ডিনারের পর, দাঁত ব্রাশ না করে ঘুমোতে যান না অনেকেই। কেউ কেউ তো লাঞ্চের পরেও দাঁত ব্রাশ করেন। সুন্দর দাঁত মানেই একগাল সুন্দর হাসি। কিন্তু, দাঁতের অতিযত্ন করছেন কি? মানে, যতবার খুশি দাঁত ব্রাশ করছেন বা মিনিটের... আরও দেখুন

healthprior21 (one stop 'Portal Hospital')